১৫ হাজার টাকার মধ্যে ২টি শাওমি ও রিয়েলমি ফোন রিভিউ | Xiaomi Redmi 10C বনাম Realme C31

0

 ১৫ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে ২ টি শাওমি ও রিয়েলমি ফোনের রিভিউ দেবো আজকের পোস্টে।  বাংলাদেশের জনপ্রিয় ফোনগুলোর মধ্যে শাওমি ও রিয়েলমি অন্যতম। যে ফোন দুটির রিভিউ দেব সেই ফোন দুটি হলো Xiaomi Redmi 10C ও Realme C31। শাওমি ও রিয়েলমি ফোন দুটির মূল্য , বাংলাদেশে মুক্তির তারিখ , নেটওয়ার্ক টেকনোলজি ,নেটওয়ার্ক স্পিড, ওজন, রং , সিম , ডিসপ্লের ধরন , ডিসপ্লের সাইজ ও রেজুলেশন , অপারেটিং সিস্টেম , প্রসেসর , র‍্যাম ও রম , ক্যামেরা ফিচার, ব্যাটারি ও চার্জিং ও অন্য কিছু ফিচার নিয়ে তুলনা করব এবং তুলনার সাথে সাথে রেটিং দিয়ে আপনাদের বুঝতে সাহায্য করবো কোন ফোন কোন দিক থেকে এগিয়ে আছে আর অবশ্যই তুলনা করা শেষে আমার নিজস্ব মতামত দেব। 

১৫ হাজার টাকার মধ্যে ২টি শাওমি ও রিয়েলমি ফোন রিভিউ | Xiaomi Redmi 10C বনাম Realme C31


প্রথমেই এই ফোন দুটির মূল্য নিয়ে বলবো। Xiaomi Redmi 10C ফোনের মূল্য ১৪,৪৯৯ টাকা আর Realme C31 এর মূল্য ১৪,৪৯০ টাকা ফোনের ওয়েটিং সমান। ফোন দুটিই রিলিজ করা হয়েছে ২০২২ সালের মার্চ মাসে। Realme C31 রিলিজ করা হয়েছে মার্চ মাসের ৩১ তারিখে অপরদিকে Xiaomi Redmi 10C রিলিজ করা হয়েছে Realme C31 ফোনের মুক্তির এক সপ্তাহ আগে মার্চের ২৩ তারিখে।

১৫ হাজার টাকার মধ্যে এই দুটি ফোনের নেটওয়ার্ক টেকনোলজি , রিলিজ ডেট ও মূল্যের মতো প্রায় একই রকম। নেটওয়ার্ক টেকনোলজিতে GSM/HSP/LTE প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। উভয় ফোন দুটিতে টুজি, থ্রিজি এবং ফোরজি নেটওয়ার্ক সাপোর্ট করে। একইভাবে ফোন দুটির নেটওয়ার্কের speed ৫.৭৬ এমবিপিএস। 

Realme C31 এর ওজন ১৯৪ গ্রাম অন্যদিকে Xiaomi Redmi 10C এর ওজন ১৯৮ গ্রাম । ওজনের দিক থেকে Realme C31 সামান্য হালকা মনে হতে পারে। realme ফোনটি দুইটি রং এ পাওয়া যাবে রংগুলো হলো লাইট সিলভার ও ডার্ক গ্রিন ‌। শাওমির ফোনটির রং গ্রাফাইট গ্রে , অসান ব্লু ও মিন্ট গ্রিন এই তিন বর্ণের। ওজনের দিক থেকে ৪ গ্রাম ওজন কম নিয়ে Realme C31 এগিয়ে গেলেও অন্যদিক দিয়ে Redmi 10C রঙের ভেরিয়েশনের দিক থেকে এগিয়ে আছে।

এই ফোন দুটির টাচস্ক্রিন IPS,LCD ক্যাপাসিটিভ‌ । কিন্তু xiaomi redmi 10C ডিসপ্লে realme c31 এর চাইতে সামান্য বড় রেডমি ডিসপ্লে ৬.৭১ ইঞ্চি আর C31 এর ডিসপ্লে ৬.৫ ইঞ্চি। আবার দুটি ফোনেরই রেজুলেশন  ৭২০×১৬০০ পিক্সেল । ডিসপ্লে দিক থেকে যারা ছোট ডিসপ্লে ভালোবাসেন তাদের জন্য রিয়েলমি ফোনটি আর যারা বড় ডিসপ্লে পছন্দ করেন তাদের জন্য রেডমি ফোনটি ভালো হবে।

দুটি ফোনেরই অপারেটিং সিস্টেম এন্ড্রয়েড ১১ ও তাদের নিজস্ব UI সিস্টেম দ্বারা পরিচালিত হবে। Realme C31 এর প্রসেসর Unisoc Tiger Octa-core ও Xiaomi Redmi 10C প্রসেসর Qualcomn SM6225 Snapdragon 680 4G Octa-core । অর্থাৎ উভয়েরই শক্তিশালী ডাটা প্রসেসিং ক্ষমতা আছে। 

Realme C31 ফোনের র‍্যাম ৩ / ৪জিবি ও রম ৩২ / ৬৪ জিবি অন্যদিকে Xiaomi Redmi 10C টেন সি এর র‍্যাম ৪ জিবি ও রম ৬৪/১২৮ জিবি। র‍্যাম ও রম এর দিক থেকে Xiaomi Redmi 10C এগিয়ে আছে। 

Realme C31 এর তিনটি প্রধান ক্যামেরা ১৩+২+০.৩ মেগাপিক্সেল অন্যদিকে Xiaomi Redmi 10C ফোনের ৫০+২ মেগাপিক্সেলের দুইটি ক্যামেরা এবং উভয়ের সেলফি ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেল করে। আর এইসব ক্যামেরা ব্যবহার করে দুটি ফোন থেকেই ১০৮০ পিক্সেলের ভিডিও রেকর্ড করা সম্ভব হবে।

এবার আসি ব্যাটারির দিকে। শাওমি ও রিয়েলমি এই দুই ফোন জায়ান্ট কোম্পানিই নন-রিমুভেবল লিথিয়াম পলিমারের ৫,০০০ মেগাএম্পিয়ারের ব্যাটারি দিচ্ছে। শাওমি এই ফোনে ফার্স্ট চার্জিং সক্ষমতা দেওয়া হয়েছে কিন্তু realme তে তা দেওয়া হয়নি। এছাড়া ফিঙ্গারপ্রিন্ট দুটো ফোনেরই আছে, প্রথমটির সাইডে আর দ্বিতীয় টার পেছনে অবস্থিত ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

কোনসব ফিচারগুলোর বেশিরভাগ একই রকম হলেও রিয়েলমি সি31এর থেকে রেডমি টেন সি কিছুটা বেশি প্রতিযোগিতার বাজারে এগিয়ে থাকবে । কারণ ১৫,০০০ টাকার মধ্যে এই দুটি শাওমি ও রিয়েলমি ফোনের মধ্যে realme এর NFC , এফএম রেডিও, ইনফ্রা রেড পোর্ট নেই আর সেই সাথে USB ২.০ আর এদিকে শাওমি রেডমির NFC , এফএম রেডিও, ইনফ্রা রেড পোর্ট  থাকার পাশাপাশি USB type-c ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !