গুগল কি? গুগল দৈনন্দিন জীবনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ জেনে নিন।

0

গুগল কি? এটা নিশ্চয়ই  কাউকে আলাদাভাবে বলে দিতে হবে না। আমরা সবাই জানি গুগল কি?  তবে আমার মনে হয় আমাদের বেশির ভাগই গুগলকে সার্চ ইঞ্জিন হিসেবেই চিনে থাকি। হ্যাঁ এটা সত্যি গুগলের সবচেয়ে প্রচলিত আর পরিচিত সেবা হচ্ছে গুগল সার্চ। যখন ১৯৯৮ সালে গুগল প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল তখন মূলত সার্চ ইঞ্জিন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছিল। কিন্তু যখন গুগল এক লাখ ডলারের প্রথম বিনিয়োগ পেয়েছিল তখন থেকে এখন পর্যন্ত গুগল আর সার্চ ইঞ্জিনের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। সময়ের সাথে সাথে গুগল তার সেবা ও পরিষেবা অনেক বিস্তার করেছে। গুগল এখন আর শুধু একক কোম্পানি নেই । 

toc

সময়ের সাথে সাথে গুগল বহুজাতিক কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে এবং তাদের ব্যবসা সারা বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে দিয়েছে। এখন গুগল আপনাকে নিয়ন্ত্রণ করছে এটা বলা বাহুল্য। আপনি চাইলে আপনার সারাটা দিন গুগলের পণ্য ব্যবহার করেই কাটিয়ে দিতে পারেন। কিন্তু আপনার কাছে মনে হবে না যে আপনি গুগলের সেবা ব্যবহারের মধ্যে আছেন। আপনি চিন্তাও করতে পারবেন না গুগল আপনার জীবনকে কতটা নিয়ন্ত্রণ করছে। আপনি কিভাবে গুগলের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে আছেন চলুন কিছু উদাহরণের সাহায্যে দেখি নিই।


গুগল কি?


মনে করেন, আমি আপনাকে চ্যালেঞ্জ দিচ্ছি , আপনি একটি দিন গুগল ব্যাবহার ছাড়া কাটাতে পারবেন না। আপনি যদি আমার এই চ্যালেঞ্জটা গ্রহণ করেন তাহলে আপনার মত বোকা শুধু বাংলাদেশ নয় পুরো পৃথিবীতে নেই। আপনার মনে হচ্ছে , আমি কেন এমনটা বলছি? আসলে আপনি যদি আমার চ্যালেঞ্জ  গ্রহণ করেন তাহলে কিভাবে আপনি বোকা হবেন দেখবেন?

ধরুন আপনি আমার চ্যালেঞ্জটা একসেপ্ট করলেন । তার পরে বললেন যে আমি সারাদিন গুগোল ব্যবহার করব না। তারপরে আপনার সময় কাটানোর জন্য আপনি চলে গেলেন ইউটিউবে। ইউটিউবে গিয়ে সারাদিন ধরে ভিডিও দেখলেন , দিনের শেষে আপনি আমার কাছে এসে বললেন আমি চ্যালেঞ্জে জিতে গিয়েছি! পুরোটা দিন আমি গুগল ব্যবহার করিনি!! আমি ইউটিউব ব্যবহার করেছি। দেখেন আপনি কীভাবে বোকা হয়ে গেলেন!! আপনি নিজের অজান্তেই গুগল ব্যাবহার করে ফেলেছেন কিন্তু আপনি জানেনই না আপনি গুগল ব্যবহার করছেন। ইউটিউব গুগলের একটি পণ্য । ইউটিউব ব্যবহার করা যে কথা , গুগল ব্যবহার করা সেই একই কথা।  

মনে করেন আপনি জানেন যে ইউটিউব গুগলের একটি সেবা । তাই ইউটিউব ব্যবহার করলেন না । সারাদিন আপনি আপনার ফোনটির ডেটা বন্ধ করে রেখে , আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনে বসে ভিডিও দেখলেন , গেমস খেললেন,  একটু ক্যালেন্ডারে ঘাটাঘাটি করলেন তারপর দিন শেষে আপনি আমার কাছে এসে আবার জিজ্ঞাসা করলেন এবারে কি আমি সারা দিন গুগল ব্যাবহার না করে ছিলাম?

এবারেও আমার উত্তরঃ না! আপনি গুগল ব্যাবহার না করে সারাদিন অতিক্রম করতে পারেননি। কিভাবে অবাক হওয়ার কিছু নেই আপনি যে গেমস খেলেছেন । সেই গেমসটি আপনি ডাউনলোড করার জন্য গুগল প্লে স্টোর ব্যবহার করেছেন। অথবা আপনি প্লে স্টোর অফার না করে গুগল ক্রোম ওপেন করে সার্চ দিয়ে অন্য কোন ওয়েবসাইট থেকে গেমস ডাউনলোড করেছেন এক্ষেত্রে গুগল ক্রোম হলো গুগলের তৈরি একটি ব্রাউজার। আপনি যে ক্যালেন্ডার ঘাঁটাঘাঁটি করেছেন এইটাও ডিফল্ট ভাবে প্রতিটা ফোনে গুগল ক্যালেন্ডারে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। আর সবচেয়ে মজার ব্যাপার হচ্ছে আপনি যে অ্যান্ড্রয়েড ফোনটি ব্যবহার করছেন সেটি পরিচালিত হচ্ছে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা। আর এই অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম কিন্তু অন্য কোন কোম্পানির না , গুগলের একটি পণ্য। 

আপনি না চাইলেও আপনাকে গুগল ব্যবহার করতে হবে আর আপনি গুগল থেকে নিজেকে আলাদা করে রাখবেন এটা আসলে আপনি পারবেন না। বর্তমান বিশ্বে গুগল একটি বৃহৎ প্রতিষ্ঠান যা বিভিন্নভাব মানুষের প্রযুক্তিগত সমস্যার সমাধান দিয়ে থাকে। এখন তো আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে , গুগল কি? আর আজকের আর্টিকেলটি মূলত গুগল কি? এই বিষয়ে । সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়লে গুগল কি? এই ধারণটি পরিষ্কার হবে। আর এই গুগল এর যুগে গুগল কি? এটা আপনার জানা দরকার । এবারে চলুন , গুগল কি? তা জেনে নিই।

গুগল কি?


নাম গুগল ইনকর্পোরেটেড (১৯৯৮–২০১৭ ),  গুগল এলএলসি (বর্তমান)
প্রতিষ্ঠাকালীন নাম :  ব্যাকরাব (BackRub)
প্রতিষ্ঠাকাল: ১৯৯৮ সালের ৪ঠা সেপ্টেম্বর
প্রতিষ্ঠাতা: ল্যারি পেজ ও সের্গেই ব্রিন
প্রধান নিবার্হী: সুন্দর পিচাই
মোট কর্মী (২০১৯) :  ১, ১৪, ০৯৬ জন
মোট সার্ভার:  ১ মিলিয়নের বেশি
মোট সম্পদ: ৩০০ মিলিয়ন ডলার
সার্চের বিষয় ( প্রতি সেকেন্ড)  ৬৩ হাজার টি
উল্লেখযোগ্য পণ্য ও সেবা: 🔗youtube.com , 🔗blogger.com, Adsense ইত্যাদি
ওয়েবসাইট:  🔗google.com

১৯৯৬ সালে যখন ল্যারি পেজ এবং সের্গেই ব্রিন ব্যাকরাব নামে একটি সার্চ ইঞ্জিন তৈরি করেছিলেন । এটি গুগলের আদি নাম। পরবর্তীতে ল্যারি পেজ এবং সার্গেই ব্রিন ১৯৯৮ সালে ব্যাকরাব এর নাম পরিবর্তন করে গুগল রাখেন। গুগল সর্বপ্রথম সবার সামনে আসে একটি ব্যক্তিগত কোম্পানি হিসেবে এবং এর মূলত প্রধান কাজই ছিল সার্চ ইঞ্জিনকে উন্নতি সাধন করা এবং সার্চ ইঞ্জিনের নতুন মাত্রা যুক্ত করা যাতে একজন ব্যবহারকারী খুব সহজেই তার প্রয়োজনীয় বিষয়টি খুঁজে পেতে পারে। কৃষ্ণময় সাজা দিয়ে সার্চ ইঞ্জিনের ধারণাটির পাশাপাশি আরও কিছু পণ্য বিকশিত করেছে এবং জনসাধারণের মধ্যে ছড়িয়ে দিয়েছে।


এখন গুগোল একটি বড় কোম্পানি যার বিস্তার পুরো বিশ্ব জুড়ে। ১৯৯৬ সালের সার্চ ইঞ্জিনটির নাম ব্যাকরাব থেকে গুগল করা হয়েছে। গুগল শব্দটির অর্থ সবার কাছে পরিষ্কার নয় আর গুগল নিজেও এটি পরিস্কার করেনি। গুগোল একটি গাণিতিক ট্রাম যার ব্যাকরণগত অর্থ "১ এর পরে ১০০টি শূন্য " কত বিশাল সংখ্যা । এ সংখ্যাটি যত বিশাল গুগল সার্চের সক্ষমতাও ততটাই বিশাল। গুগল সার্চ ই কিন্তু গুগল  নয়। গুগোল সার্চ গুগোল এর একটি ডেডিকেটেড পর্নো বর্তমানে। 

গুগল সার্চসহ গুগলের যত সেবা ও পণ্য আছে সবকিছুই "গুগল এলএলসি  বা গুগল লিমিটেড লায়াবেলিটি কোম্পানি" নামের কোম্পানির অন্তর্ভুক্ত। তাহলে বলতে পারা যায় গুগল হচ্ছে একটি বিশ্বব্যাপী বিস্তারত আমেরিকান প্রযুক্তি কোম্পানি যেটা ইন্টারনেটের সকল সুবিধা দিয়ে থাকে। আশা করছি গুগল কি? বুঝতে পেরেছেন।

এখন আপনার মনে প্রশ্ন আসতে পারে গুগলের কতগুলো সেবা আছে। আজকে গুগলের কত বয়সে বেশি সেটা নির্দিষ্ট করে বলা খুবই ডিফিকাল্ট একটা ব্যাপার। প্রতিনিয়তই গুগলের সকল ডেভলপাররা মিলে গুগলের পণ্য ও সেবা বাড়িয়ে চলেছে তাই এগজ্যাক্টলি না বলে কিছু উল্লেখযোগ্য সেবার কথা বলতে পারা যায়। তো গুগোল আমাদের জীবনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ ও গুগলের সেবামূলক উল্লেখযোগ্য কিছু সেবা তালিকা এখানে দেয়া হলোঃ

গুগলের কিছু উল্লেখযোগ্য পণ্য ও সেবা

  1. গুগল সার্চ 
  2. ইউটিউব 
  3. ব্লগার 
  4. অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম 
  5. স্ন্যাপসিড 
  6. ডেটা স্টুডিও
  7. গুগল অ্যাড ওয়ার্ড
  8. গুগল এডসেন্স 
  9. গুগল এডমোব 
  10. গুগল প্লে স্টোর 
  11. গুগল ক্রোম ব্রাউজার 
  12. গুগল ট্রান্সলেট 
  13. গুগল ড্রাইভ 
  14. গুগল ম্যাপ 
  15. গুগল ফটো
  16. গুগোল নিউজ 
  17. গুগোল ওয়ান 
  18. গুগল ক্যালেন্ডার 
  19. জিমেইল বা গুগল মেইল
  20. গুগোল ডুয়ো 
  21. গুগোল ফর্ম
  22.  গুগল আর্থ 
  23. গুগল ক্লাসরুম 
  24. গুগল প্লাস
  25. গুগল মিট
  26. গুগল পডকাস্ট
  27. গুগল ট্রেন্ডস্
  28. গুগল কন্টাক্ট
  29. গুগল ডকস্
  30. জিবোর্ড (কিবোর্ড)
  31. গুগল ফন্ট
  32. গুগল পে
  33. গুগল ফাইল
  34. গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট
  35. গুগল ক্লাউড 
  36. গুগল ডোমেইন

এগুলো ছাড়াও গুগলের আরো অনেকগুলো পণ্য ও সেবা আছে এগুলো উল্লেখযোগ্য ছিল তাই এগুলোর কথা উল্লেখ করলাম। 

এই ছিল আজকের আর্টিকেল।  আজকের আর্টিকেল পড়ে আপনারা গুগল কি? গুগল আমাদের জীবনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ এই সব বিষয়গুলো জানতে পেরেছেন । গুগল কি? এই সম্পর্কে  আপনার ধারনা পরিষ্কার হয়েছে ।  গুগল আপনাদের জীবনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা জানতে পেরেছেন।  এরপরেও যদি গুগল কি? এই সম্পর্কে কোন ধারণা অস্পষ্ট থাকে তবে কমেন্ট সেকশনে গুগল কি? তা আমাদেরকে জানাতে পারেন। আমি আপনাকে আপনার মন্তব্যের জবাব দেওয়ার মাধ্যমে গুগল কি? তা সম্পর্কে অস্পষ্ট আপনার ধারনাটা পরিষ্কার করে দিবো ইনশা-আল্লাহ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !