গুগল ড্রাইভ কি? গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয়?

0

গুগল ড্রাইভ অ্যাপ্লিকেশনটি আপনার ফোনে অবশ্যই দেখেছেন। আপনি কি জানেন গুগল ড্রাইভ কি? গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয় ? গুগল ড্রাইভ এর হোম পেজ সম্পর্কে,  কিভাবে গুগল ড্রাইভে ফোল্ডার তৈরি করতে হয়? গুগল ড্রাইভ এর ফাইল অন্যের সাথে কিভাবে শেয়ার করতে হয়? 


আপনার অনেক গুরুত্বপূর্ণ ফটো বা  ডকুমেন্ট কোন ভাবে ডিলিট হয়ে গেলেও পুনরায় আপনার ফোনে ডাউনলোড করতে পারবেন?  এইসব কিছু করার জন্য একটি গুগল ড্রাইভ একাউন্ট থাকতে হবে গুগল ড্রাইভে আলাদাভাবে কোন অ্যাকাউন্ট খুলতে হয়না। গুগল ড্রাইভ , গুগলের একটি সেবা তাই গুগল মেইল বা জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিলে অটোমেটিক আপনার জিমেইল এর সাথে গুগল ড্রাইভ কানেক্ট হয়ে যাবে ফলে আলাদা ভাবে লগইন করা কিংবা অ্যাকাউন্ট তৈরি করার প্রয়োজন পড়বে না।

গুগল ড্রাইভ কি? গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয়?


আজকের আর্টিকেলে গুগল ড্রাইভ কি? গুগল ড্রাইভ এ কিভাবে ফটো আপলোড করতে হয় বা ফাইল আপলোড করতে হয়,  গুগল ড্রাইভ এর হোমপেজ  সম্পর্কে , কিভাবে গুগল ড্রাইভে ফোল্ডার তৈরি করতে হয়, গুগল ড্রাইভের ফাইল অন্যের সাথে কিভাবে শেয়ার করতে হয় তা আলোচনা করব।
Table of contents

toc

 গুগল ড্রাইভ কি?

গুগল ড্রাইভ হল একটি ক্লাউড বেইজ ফাইল শেয়ারিং ও সংরক্ষণ করার একটি অ্যাপ্লিকেশন। গুগল ড্রাইভ এর মাধ্যমে আপনি আপনার সকল গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্টস ফটো ভিডিও যেকোনো কিছু বিনামূল্যে সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন।আসলে ঠিক সম্পূর্ণ বিনামূল্যে বলা যাবেনা আপনি মাত্র ১৫ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারবেন আর এর চাইতে বেশি ব্যবহার করতে চাইলে আপনাকে কিছু পরিমাণ মাসিক ভাবে টাকা পরিশোধ করতে হবে।

তবে যারা সাধারন মোবাইল ব্যবহারকারী তাদের জন্য এই ১৫ জিবি স্পেস অনেক বেশি আর এই নয় যে একটি ফোনে মাত্র ১৫ জিবি স্পেস ফ্রিতে দেয়। আপনি চাইলে একাধিক গুগল একাউন্ট অর্থাৎ জিমেইল অ্যাকাউন্ট খুলে আরও ১৫ জিবি করে স্টোরেজ বাড়িয়ে নিতে পারবেন । আবার আপনি চাইলে একটি ড্রাইভ থেকে অন্য ড্রাইভে ফাইল মুভ করে নেওয়ার মাধ্যমে বিনামূল্যে আরো বেশি স্টোরেজ ব্যবহার করতে পারবেন আর এই স্পেস আপনার আসল স্পেস এর সাথে গন্য হবে না।  তাই এটা এক কথায় গুগল ড্রাইভ মোবাইল ফোনের জন্য বিনামূল্যে বলা যায়।

তবে আপনি যদি কোনো বড় বড় ফাইল ( যেমন মুভি ) শেয়ার করার জন্য মুভি আপলোড করেন অথবা আরো বড় বড় ডকুমেন্ট যদি আপলোড করতে চান তাহলে আপনাকে মাসিক টাকা দিয়ে স্টোরেজ কেনাই  বেশি ভালো হবে। গুগল ড্রাইভের সংগ্রহ করা কোন ফাইল হারিয়ে যাওয়ার ঝুঁকি নেই। আপনার ব্যবহার করা অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসটি যদি হারিয়ে যায় তারপরেও গুগল ড্রাইভে থাকা ফটো ভিডিও ডকুমেন্ট হারাবে না। আপনি চাইলে আপনার জিমেইল এড্রেস টি দিয়ে লগইন করে সেই গুগল ড্রাইভে আপলোড করা ডকুমেন্ট ফাইল পুনরায় আপনার নতুন ডিভাইস ডাউনলোড করে নিতে পারেন। 

 কিভাবে গুগল ড্রাইভ থেকে ফোনে ডকুমেন্ট ডাউনলোড করে সেটা আজকের আর্টিকেলে কভার করা সম্ভব হবে না তাই এটা পরবর্তী দিনে কোন কোন গুগল ড্রাইভ সম্পর্কে আর্টিকেলে বিস্তারিত লিখব।


গুগল ড্রাইভ হোম পেজ পরিচিতি

গুগল ড্রাইভ ওপেন করলে প্রথমেই যে পেজ আসে সেটি হচ্ছে গুগল ড্রাইভ হোম পেজ। গুগল ড্রাইভ হোমপেজ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বাটন আছে যেগুলোর ব্যবহার সম্পর্কে আপনার জানা দরকার। গুগল ড্রাইভ হোম পেজেই আপনার আপলোড করা সকল ফাইল খুঁজে পাবেন। হোম পেজ থেকে আপলোড করা ফাইল ডাউনলোড করতে,  শেয়ার করতে , কিংবা নিরাপদে সংরক্ষন করতে পারবেন।

গুগল ড্রাইভ - হোম পেজ
গুগল ড্রাইভ হোম পেজ


গুগল ড্রাইভ হোম পেজ: গুগল ড্রাইভ হোমপেজে আপনার আপলোড করা সকল ফাইল ও ডকুমেন্ট সংরক্ষণ করা থাকে।
স্টার বাটন: গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্টকে দ্রুত খুঁজে পেতে তারকা চিহ্ন দিয়ে রাখা হয় । আর এই তারকাচিহ্নিত সকল ফাইল এই বাটনের বা সেকশনের মধ্যে থাকে।
শেয়ার বাটন: শেয়ার বাটন এর মধ্যে আপনার শেয়ারকৃত সকল ফাইল ও ডকুমেন্টস থাকবে।
যোগ করুন (Add) বাটন: বাটনে ক্লিক করে আপনি ফোল্ডার তৈরি করতে , ফাইল আপলোড করতে , গুগলের ডকুমেন্টস ও অন্যান্য সেবা গুগল ড্রাইভে সংরক্ষণ করতে ও ব্যবহার করতে পারবেন।

গুগল ড্রাইভ কি? - বাটন পরিচিতি
গুগল ড্রাইভের বিভিন্ন বাটন

গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফোল্ডার খুলতে হয়?

গুগল ড্রাইভ একাধিক ফটো , ভিডিও কিংবা ডকুমেন্টস রাখার পর সেটাকে খুঁজে পেতে একটু ঝামেলা হয়। এই ঝামেলার সেই অর্থে ঝামেলা নয় । এই ঝামেলা হচ্ছে খুঁজে পাওয়ার ঝামেলা যদিও এখানে অনেক শক্তিশালী সার্চ বক্স আছে তবুও আপনার একটি প্রজেক্টের জন্য একটা ফোল্ডার তৈরি করে রাখলে খুব অনায়াসেই একই জায়গাতে একটি প্রোজেক্টের সকল ফাইল পাওয়া যায় ফলে খুঁজে পাওয়ার ঝামেলা অনেকাংশেই কমে যায় তাই গুগল ড্রাইভে ফাইল আপলোড করার জন্য একটি ফোল্ডার তৈরি করে নিলে সবচাইতে বেশি ভালো হয়। এখন প্রশ্ন গুগল ড্রাইভ এ কিভাবে ফোল্ডার খুলতে হয়? তো চলুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে গুগল ড্রাইভে ফোল্ডার খুলতে হয়-

গুগল ড্রাইভে নতুন ফোল্ডার তৈরি করার জন্য নিচের দিকে প্লাস বা যোগ করুন বাটনে ক্লিক করতে হবে। এইখানে ক্লিক করলে একটি ইন্টারফেস আসবে। নিচের পিকচারের মত করে আইকনে ক্লিক করুন।


গুগল ড্রাইভ কি? গুগল ড্রাইভে ফোল্টার তৈরি
গুগল ড্রাইভ ফোল্ডার তৈরি - প্লাস আইকন

প্লাস আইকনে ক্লিক করলে নিম্নোক্ত ফটোর মত একটি ইন্টারফেস আসবে এই ইন্টারফেসের ফোল্ডার অপশন এ ক্লিক করুন।



গুগল ড্রাইভ কি? গুগল ড্রাইভে ফোল্টার তৈরি
গুগল ড্রাইভে ফোল্ডার তৈরি - ফোল্ডার এ ক্লিক

ফোল্ডার এ ক্লিক করার পর নিচের মত একটি উইন্ডো আসবে । এই উইন্ডোতে একটি ফাঁকা বক্স থাকবে এই বক্সে আপনার প্রজেক্ট এর নাম দিয়ে একটি ফোল্ডার তৈরি করে নিন । আমি আপনাকে বোঝানোর সুবিধার্থে " Test Folder 1 '' নাম দিয়ে ফোল্ডার তৈরি করেছি। ফোল্ডারের নাম দেওয়া হয়ে গেলে ফাঁকা বক্সের ডান দিকের নিচের Create বাটনে ক্লিক করতে হবে।


গুগল ড্রাইভ কি? গুগল ড্রাইভে ফোল্টার তৈরি
গুগল ড্রাইভ ফোল্ডার তৈরি - ফোল্ডারের নাম দেওয়া


Create বাটনে ক্লিক করার সাথে সাথে আপনার দেওয়া প্রজেক্ট এর নাম অনুসারে একটি ফোল্ডার তৈরি হয়ে যাবে । এই ফোল্ডারটি আপনার গুগল ড্রাইভের মাইড্রাইভ অপশনে পেয়ে যাবেন অথবা ফাইলস বাটনে ক্লিক করে  যাবেন । এভাবেই গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করে একটি ফোল্ডার তৈরি করতে হয়।


গুগল ড্রাইভ কি? গুগল ড্রাইভে ফোল্টার তৈরি
গুগল ড্রাইভ দিয়ে ফোল্ডার তৈরি সম্পূর্ণ

কিভাবে গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করে ফোল্ডার তৈরি করতে হয় তা শিখতে পেরেছেন। প্রতিটা ফোনে আপনি এভাবেই ফোল্ডার তৈরী করতে পারবেন। এভাবে আপনি আপনার যতগুলো ফোল্ডার তৈরি করা দরকার প্রথম থেকে শেষ ধাপ পর্যন্ত অনুসরণ করে ফোল্ডার তৈরি করে নিতে পারেন আর আপনার আলাদা আলাদা প্রোজেক্টের জন্য আলাদা আলাদা ফোল্ডার তৈরি করে নিলে ভালো হয় তাই আপনি আলাদা ফোল্ডার তৈরি করবেন।


গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয়?

এবারে গুগল ড্রাইভ এ কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয় তা শিখিয়ে দেব। গুগল ড্রাইভের ফোল্ডার তৈরি করলেন , ফোল্ডার তৈরি করা শেষে সে ফোল্ডারে ফাইল আপলোড করতে হবে। ফোল্ডারে ফাইল আপলোড না করলে অর্থাৎ গুগল ড্রাইভে যদি কোন কিছু না রাখতে পারেন তাহলে গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করা তো আর হলো না। তাই গুগল ড্রাইভ ব্যবহারের সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হচ্ছে ফাইল আপলোড করা । ফাইল আপলোড করে ততদিন ব্যবহার করতে পারবেন যতদিন না পর্যন্ত আপনি সেই ফাইলটি আপনার ড্রাইভ থেকে ডিলিট করে দিচ্ছেন। তাহলে চলুন গুগল ড্রাইভ এ কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয় সেটা শিখিয়ে দেই-

গুগল ড্রাইভে ফাইল আপলোড করতে আবারো প্রথমে ফোল্ডার তৈরি করতে যে প্লাস আইকনে ক্লিক করতে হয়েছিল সেই প্লাস আইকনে আবার ক্লিক করতে হবে। নিচের পিকচারে দেখানো প্লাস আইকনে ক্লিক করুন । তারপর নিচে ধাপ অনুসারন করুন।

গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয়
গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয় - প্লাস আইকনে ক্লিক

প্লাস আইকনে ক্লিক করলে একটি উইন্ডো আসবে। উইন্ডোর দুই নম্বর অপশন আপলোড এ ক্লিক করুন। 


গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয়
গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয় - আপলোড

আপলোড বাটনে ক্লিক করলে আপনার মেমোরি অথবা ফোনের স্টোরেজে চলে যাবে । সেইখান থেকে আপনি যে সকল ডকুমেন্ট ফাইল আপলোড করতে চান সেগুলো সিলেক্ট করুন । আমি আপনাদের বোঝার সুবিধার্থে টেক রাহিম এর লোগো আপলোড করছি আর অন্য সকল ফাইলগুলো আমি ঝাপসা করে দিয়েছি যাতে আমার প্রাইভেসি বা গোপনিয়তা রক্ষা হয়।



গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয়
গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয় - ফাইল বা ডকুমেন্ট নির্বাচন

ডকুমেন্ট সিলেট করার সাথে সাথে আপনার সেট করা ডকুমেন্ট টি আপলোড হতে শুরু করবে। আপনার ডকুমেন্টের আকার বা সাইজ যদি বেশি হয় তাহলে আপলোড হতে একটু সময় বেশি নেবে আর যদি ফাইলের আকার ছোট হয় তাহলে এই ডকুমেন্টে খুব তাড়াতাড়ি আপলোড হয়ে যাবে। যদি ডকুমেন্টের আকার বড় হয় তাহলে আপনি একটু অপেক্ষা করুন।


গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয়
গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয় - ফাইল আপলোড হচ্ছে


একটু সময় অপেক্ষা করলে দেখতে পারবেন আপনার নির্বাচন করা সেই ডকুমেন্টটি আপলোড হয়ে গেছে। দেখতেই পারছেন টেক রাহিমের লোগোটি এখানে শো করছে তারমানে টেক রাহিমের সেই লোগোটি আপলোড হয়ে গেছে। আপনাকে এখানে আপনার সেই নির্বাচন করা ডকুমেন্ট টি আপলোড হয়ে যাবে এবং আপনাকে এখানে আপনার ডকুমেন্ট শো করবে বা  দেখাবে।


গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয়
গুগল ড্রাইভে কিভাবে ফাইল আপলোড করতে হয় - ডকুমেন্ট আপলোড সম্পন্ন

তো এভাবে গুগল ড্রাইভে ফাইল আপলোড করতে হয়। গুগল ড্রাইভে ফাইল আপলোড করা একদম সহজ। তো আপনি শিখে ফেললেন কিভাবে গুগল ড্রাইভে ফটো , ভিডিও  , টেক্সট ডকুমেন্ট ইত্যাদি যোগ করতে হয়। 


কিভাবে গুগল ড্রাইভের ফাইল অন্যের সাথে শেয়ার করতে হয়?

গুগল ড্রাইভে ফটো ভিডিও ডকুমেন্ট আপলোড করার পর তা আপনি দেশে-বিদেশে এবং পৃথিবীর যেকোন প্রান্ত থেকে আপনার গুগল একাউন্টে লগইন করার মাধ্যমে সেই সকল ফটো ভিডিও ডকুমেন্ট ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি চাইলে সে ডকুমেন্ট আপনার সহকর্মী কিংবা অন্য কোন মানুষের সঙ্গে শেয়ারও করতে পারবেন।  কিভাবে গুগল ড্রাইভ এর ফাইল অন্যের সাথে শেয়ার করতে হয় সেটা শিখে নেওয়া যাক । তো শুরু করি কিভাবে গুগল ড্রাইভে ফাইল অন্যের সাথে শেয়ার করতে হয়

প্রথমে আপনি যে ফাইলটি শেয়ার করতে চাচ্ছেন ওই ফাইলটি যে ফোল্ডারে আছে তা ওপেন করে নিন। ফোল্ডার ওপেন করে যে ফাইলটি সেয়ার করতে চাচ্ছেন সে ফাইলের পাশে তিনটি ডট দেখতে পাবেন । সেই তিনটি ডট এ ক্লিক করুন । এই ডট এ ক্লিক করলে অনেকগুলো মেনু আসবে।


গুগল ড্রাইভে ফাইল শেয়ার
কিভাবে গুগল ড্রাইভের ফাইল অন্যের সাথে শেয়ার করতে হয় - তিন ডটে ক্লিক

তো তিন ডটে ক্লিক করলে দেখবেন শেয়ারের একটি অপশন আসবে এই শেয়ার এ ক্লিক করতে হবে।


গুগল ড্রাইভে ফাইল শেয়ার
কিভাবে গুগল ড্রাইভের ফাইল অন্যের সাথে শেয়ার করতে হয় - শেয়ার

ক্লিক করলে নিচের দিকে একটি লেখা আসবে। লেখাটি হলো who has access এখানে not shared লেখা থাকবে। সেই Not shared লেখাতে ক্লিক করতে হবে। 

আর এই সম্পূর্ণ ধাপটি কমপ্লিট না করলে আপনি আপনার ফাইলটি অন্য কারও সঙ্গে শেয়ার করতে পারবেন না। কারণ সেই ফাইলটি অন্য কারো এক্সেস দেওয়া নাই। অন্য কাউকে অ্যাক্সেস না দেওয়া থাকলে আপনি সেই ফাইলটি লিংক শেয়ার করার পরও অন্য কেউ সেই ফাইলটি দেখতে বা পড়তে কিংবা ব্যবহার করতে পারবে না। তাই এই নিচের ধাপগুলো অনেক গুরুত্বপূর্ণ এ ধাপগুলো খুব যত্নসহকারে ফটোতে দেখানো ধাপ অনুযায়ী করতে থাকুন।

গুগল ড্রাইভে ফাইল শেয়ার
গুগল ড্রাইভে ফাইল শেয়ার 


not shared এ ক্লিক করলে আপনার link settings নামের একটি সেটিংস ওপেন হবে এইখানে restricted এর নিচে লেখা থাকবে only people added can open । লেখার উপরে ক্লিক করতে হবে।


গুগল ড্রাইভে ফাইল শেয়ার
restricted  এ ক্লিক করুন


restricted এ ক্লিক করার পরে only people added can open with the link এর নিচে change নামে অপশন আসবে এই অপশনে ক্লিক করতে হবে।


গুগল ড্রাইভে ফাইল শেয়ার
চেঞ্জ এ ক্লিক করতে হবে

এরপরে anyone with the link এ ক্লিক করতে হবে। এখানে ক্লিক করলে আপনি যার সাথে যার সাথে লিংক শেয়ার করবেন সবাই আপনার এই ফাইলের অ্যাক্সেস পাবে এবং সবাই তার নিজের মতো করে ব্যবহার করতে পারবে এবং অন্যের সাথে শেয়ার করতে পারবে। তবে এখানে অনেকগুলো অপশন আছে যেখান থেকে আপনি তাকে একজন এডিটর হিসেবে, একজন মন্তব্যকারী হিসেবে অথবা একজন শুধুমাত্র দর্শক বা ভিউয়ার হিসেবে নির্বাচন করতে পারবেন। তবে শুধুমাত্র anyone with the link এ ক্লিক করে ভিউয়ার্স সিলেক্ট করলে সে শুধুমাত্র দেখতে পারবে ।


গুগল ড্রাইভে ফাইল শেয়ার


এরপর সবকিছু সিলেক্ট করা হয়ে গেলে। নিচের ফটো তে দেখা নো তীর চিহ্ন ক্লিক করে পেছনে চলে আসতে হবে।


গুগল ড্রাইভে ফাইল শেয়ার


তো আপনার ফাইলটি এখন সবার সাথে শেয়ার করার জন্য উন্মুক্ত ‌‌। আপনি এখন চাইলে যার সাথে লিংক শেয়ার করবেন সেই এই ফটো বাই ডকুমেন্ট বা সব কিছু দেখতে পাবে। লিংক পেতে হলে এই পেজের ডানদিকে নিচের ফটোতে দেখানো লিংক আইকনে ক্লিক করে লিংকটি কপি করে নিতে হবে তাহলে কাজ শেষ। 

গুগল ড্রাইভে ফাইল শেয়ার জন্য

গুগল ড্রাইভে ফটো শেয়ার করার
লিংক কপি করা

 এভাবে যেকোন ফাইলের লিংক আপনি আপনার বন্ধুদের সাথে কিংবা সহকর্মীর সাথে শেয়ার করে ফেলতে পারেন। এই ছিল কিভাবে গুগল ড্রাইভ ফাইল অন্য সাথে শেয়ার করতে হয় । আপনার গুগল ড্রাইভ এর ফাইল এইভাবে যে কারোর সাথে শেয়ার করতে পারবেন।


শেষ কথাঃ গুগল ড্রাইভ এর ব্যবহার অনেক ব্যাপক ও জনপ্রিয়। গুগল ড্রাইভের অন্যান্য সকল ফিচারগুলো এবং অন্যান্য ব্যবহার কিভাবে গুগল ড্রাইভের স্পেস বা স্টোরেজ বাড়াবেন, কিভাবে একটি গুগল ড্রাইভ এর ফাইল অন্য গুগল ড্রাইভ শেয়ার করবেন , কিভাবে গুগল ড্রাইভ একাউন্ট দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করবেন তার সবকিছু অন্য কোন আর্টিকেলের মাধ্যমে শেয়ার করব। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)

#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !